1. smsitservice007gmail.com : admin :
তানোরে ইউপি সদস্যে বিরুদ্ধে খাস পুকুর ভরাটের অভিযোগ  - সতেজ বার্তা ২৪
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:২৫ অপরাহ্ন
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:২৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলা দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাৎ ও শিব লিঙ্গ বিক্রির অভিযোগ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা

তানোরে ইউপি সদস্যে বিরুদ্ধে খাস পুকুর ভরাটের অভিযোগ 

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১১ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৯৩ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোরে এক ইউপি সদস্যর (মেম্বার) গ্রামবাসির বাধা উপেক্ষা করে সায়রাতভুক্ত সরকারি খাস পুকুর ভরাটের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার বাধাইড় ইউনিয়নের (ইউপি) বাধাইড় গ্রামে এই পুকুর ভরাটের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় গ্রামবাসীর মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এদিকে সরকারী খাস পুকুর উদ্ধার, পুনঃখনন ও অভিযুক্ত মেম্বারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে গত ১০ অক্টোবর মঙ্গলবার গ্রামবাসি ডাকযোগে রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও ডিডিএলজি বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।
অভিযোগে প্রকাশ, উপজেলার বাধাইড় ইউনিয়নের (ইউপি) বাধাইড় মৌজায় ৮১২ নম্বর দাগে ৪৭ শতক আয়তনের একটি সায়রাতভুক্ত সরকারি খাস পুকুর রয়েছে। উপজেলা ভুমি অফিস থেকে প্রতিবছর পুকুরটি একশনা ইজারা দেয়া হয়।কিন্ত্ত ইউপির এক নম্বর ওয়ার্ড সদস্য (মেম্বার) সেলিম রেজা নির্বাচিত হবার পরপরই গ্রামবাসির বাধা উপেক্ষা করে পুকুরের সিংহভাগ ভরাট করে নিয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষণ আইন, ২০০০ অনুযায়ী, কোনো পুকুর, জলাশয়, খাল ও লেক ভরাট করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। পরিবেশ সংরক্ষণ আইনেও (২০১০ সালে সংশোধিত) যেকোনো ধরনের জলাশয় ভরাট করা নিষিদ্ধ। এ বিষয়ে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) তানোর উপজেলা শাখার সভাপতি মফিজ উদ্দিন বলেন, মুক্ত জলাশয় উদ্ধার করা না গেলে পরিবেশের চরম বিপর্যয় ঘটবে। আর সরকারি খাস পুকুর ভরাটের অপরাধ প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত  জনপ্রতিনিধিকে বরখাস্ত করা উচিৎ। এবিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য (মেম্বার) সেলিম রেজা বলেন, তারা কয়েকভাই মিলে পুকুরের কিছু অংশ ভরাট করেছেন সত্যি, তবে সরকার চাইলে তারা আবার খনন করে দিবেন। তিনি বলেন, পুকুরটি গ্রামের মানুষের কোনো কাজে লাগে না তাই ভরাট করা হয়েছে। এবিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান বলেন, সরকারি খাস পুকুর ভরাটের বিষয়ে তিনি অবগত নন। তিনি বলেন, যদি অভিযোগ সত্যি হয় তাহলে মেম্বার এটা অন্যায় করেছেন। এবিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) আবিদা সিফাত বলেন, তারা এখানো কোনো লিখিত অভিযোগ পাননি, তবে এবিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।#

এ জাতীয় আরও খবর
Translate »