1. smsitservice007gmail.com : admin :
রাজশাহীতে সংরক্ষিত আসনে এক ডজন নেত্রী আলোচনায় মর্জিনা - সতেজ বার্তা ২৪
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫০ অপরাহ্ন
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলা দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাৎ ও শিব লিঙ্গ বিক্রির অভিযোগ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা

রাজশাহীতে সংরক্ষিত আসনে এক ডজন নেত্রী আলোচনায় মর্জিনা

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৫৪ বার পঠিত

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর গঠিত হয়েছে সংসদ। এবার সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি নির্বাচনের পালা। যাঁরা দলের মনোনয়ন পান, তাঁরাই হন সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি। এবার রাজশাহী থেকে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের প্রায় এক ডজন নেত্রী সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হবার আলোচনায় রয়েছেন। তাঁদের অনেকে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ইফফাত আরা কামাল। তাঁর স্বামী মোহাম্মদ আলী কামাল নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি এবার রাজশাহী-২ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছিলেন। তবে জোটের শরিক ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশার জন্য তিনি সরে যান। সে হিসেবে সংরক্ষিত আসনের জন্য তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে বেশ জোরালো আলোচনা শুরু হয়েছে।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আগে মহানগর আওয়ামী লীগ কিংবা সহযোগী সংগঠনের কাউকে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি করা হয়নি। ফলে এবার মহানগর থেকেই কাউকে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি করা হতে পারে বলে নেতাকর্মীরা আশাবাদী। এতে কপাল পুড়তে পারে রাজশাহীর বর্তমান সংরক্ষিত এমপি আদিবা আনজুম মিতার। তবে মিতা এবারও মনোনয়ন পেতে তদবির করছেন। অন্যদিকে তৃণমুলে পচ্ছন্দের শীর্ষে রয়েছেন মর্জিনা পারভীন। একাদশ সংসদে যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় এই নেত্রী হঠাৎ করেই সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হন। তাঁকে নিয়ে কোনো আলোচনা ছিল না। এমপি হয়েও তাঁর রাজনীতি ছিল ঢাকাকেন্দ্রিক। এবার রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি শাহীন আক্তার রেনী সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি মনোনয়ন চান। তবে তৃণমুলের ভাষ্য, তাকে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি করা হলে রাজশাহীর রাজনীতিতে পরিবারতন্ত্র কায়েম হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই তারা রাসিক মেয়র পরিবারের বাইরের কাউকে এখানে দেখতে চাই।এছাড়াও নেতৃত্বের বিকাশ ঘটাতে নতুন মুখ চাই।
দলীয় সূত্রগুলো বলছে, একাদশ সংসদে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আলাদা আলাদা নারী এমপি করা হয়েছিল। এবার রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে একজনকেই সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি করা হতে পারে। এ ক্ষেত্রে বর্তমান দুই সংরক্ষিত এমপিই বাদ পড়তে পারেন। আসতে পারে নতুন মুখ। নারী নেত্রী শাহীন আকতার রেনীকে এমপি করার সম্ভাবনা বেশি বলে মনে করছে তার কর্মী-সমর্থকেরা। এ ছাড়া এই পরিবারের আরেক নারী মালিহা জামান মালাও আছেন আলোচনায়। বর্তমানে তিনি মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। এ ছাড়াও এবার সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হতে চান রাজশাহী মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সালমা রেজা, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ইফফাত আরা কামাল, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মর্জিনা পারভীন, সাধারণ সম্পাদক নাসরিন আখতার মিতা, সহসভাপতি রোকসানা মেহেবুব চপলা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পূর্ণিমা ভট্টাচার্য, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য নিঘাত পারভীনসহ জেলা ও মহানগরের আরও কয়েকজন নারী। শাহীন আকতার রেনী কোনো কারণে এমপি না হলে আসতে পারেন এই পরিবারের আরেক নারী মালিহা জামান মালা বলে মনে করছেন তাদের অনুগত কর্মী-সমর্থকগণ। মালা  সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের চাচাতো বোন। ২০০৪ সালে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে তাঁর রাজনীতি শুরু। ছিলেন মহানগর মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। ১০ বছর ধরে আছেন যুগ্ম সম্পাদকের পদে। এ ছাড়া তিনি মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। আগের কমিটিতেও তিনি এই পদে ছিলেন।
এবিষয়ে জানতে চাইলে মালিহা জামান মালা বলেন, ‘আমি চাই আগে আমাদের ভাবি শাহীন আকতার রেনীর মূল্যায়ন হোক। তিনি না চাইলে আমি হতে চাই। কারণ, আমিও দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতি করছি। মানুষের সঙ্গে আছি। তাদের সেবা করার সুযোগ চাই। আমি আমার ভাই খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে আলোচনা করব। তিনি যদি আমাকে মনোনয়নপত্র তুলতে বলেন তাহলে আমি তুলব। এখনো বিষয়গুলো নিয়ে আমাদের আলোচনা হয়নি।’ নারী নেত্রী শাহীন আকতার রেনী বলেন, এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত নেবেন, সেটিই চূড়ান্ত। সংরক্ষিত আসনের জন্য আমি মনোনয়নপত্র তুলব কি না তার এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।
এ জাতীয় আরও খবর
Translate »