1. smsitservice007gmail.com : admin :
দানের জমিতে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, ভাঙ্গা হলো মন্দির - সতেজ বার্তা ২৪
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২২ অপরাহ্ন
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা ২০ বছর পাড় হয়নি ধর্ষন, মাদক সহ ২৪টি মামার আসামি ইয়াবা সুন্দরীর ছেলে কিশোর গ্যাং লিডার তানভীরের. রাজশাহীতে সংরক্ষিত আসনে এক ডজন নেত্রী আলোচনায় মর্জিনা

দানের জমিতে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, ভাঙ্গা হলো মন্দির

মাজাহারুল ইসলাম মামুন,   লালমনিরহাট প্রতিনিধি  
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৬১ বার পঠিত

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় মন্দিরের নামে লিখিত ভাবে দলিলের মাধ্যমে জমি দিতে চেয়ে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পবিত্র বর্মন নামে একজনের বিরুদ্ধে। জমি না পেয়ে পাকা মন্দির ভেঙ্গে ফেলছে ভক্তরা।
শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে ওই উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের মাষ্টার পাড়া গ্রামের রাধা কৃষ্ণ মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।
জানা যায়, ১৫ বছর আগে পূর্ব নওদাবাস মাষ্টার পাড়া গ্রামের রাধা কৃষ্ণ মন্দিরে মৌখিক ভাবে জমি দান করেন একই এলাকার পবিত্র বর্মন। সম্প্রতি প্রায় ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে ওই জমির ওপর পাকা ওয়ালসহ ছাদ-ঢালাই মাধ্যমে নতুন মন্দির ও চারদিকে বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ করেন মন্দিরের লোকজন। কিন্তু ওই দানের জমিকে কেন্দ্র করে কিছুদিন থেকে পবিত্র বর্মন ওই মন্দিরের ভক্তদের উদ্দেশ্য করে হেয়-প্রতিপন্ন করতে থাকে। বিষয়টি বুঝতে পেয়ে ওই মন্দির কমিটি তার দান করা ২ শতক জমি দলিলের মাধ্যমে লিখে চান। কিন্তু জমি লিখে দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন পবিত্র বর্মন।
স্থানীয়রা দানের ওই ২ শতক জমির বিষয়টি বিভিন্ন ভাবে মিটমাটের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। ফলে শুক্রবার দুপুরে ওই মন্দিরের লোকজন পবিত্র বর্মনের জমির ওপর থেকে মন্দির সরিয়ে নিতে মন্দির ভেঙে ফেলেন। এ ঘটনায় স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষজনের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।
ওই মন্দির কমিটির সভাপতি দেবব্রত রায় জানান, জমির মালিক পবিত্র বর্মনের সাথে বিষয়টি নিয়ে বারবার বসার চেষ্টা করা হয়েছে। কোনোভাবেই তিনি জমি দান বা টাকা’র বিনিময়ে দিতে রাজি হননি। পরে উপায় খুঁজে না পেয়ে মন্দির ভেঙ্গেছি।
ওই ২ শতক জমির অংশীদার ও পবিত্র বর্মনের ভাই রনজিত কুমার বলেন, মন্দির ভাঙ্গার ঘটনাটি আমরা কিছু জানিনা। তারা জমির বিষয়ে আমাদের কাছে আসেনি। আমরাও এই ঘটনার সমাধান চাই।
স্থানীয় ইউপি সদস্য শশী মোহন জানান, ব্যক্তিভাবে কয়েকবার চেষ্টা করেছি পবিত্র বর্মনের কাছ থেকে জমিটি মন্দিরকে নিয়ে দিতে। পরে মন্দিরের সবার সিধান্তে মন্দির ভাঙ্গা হচ্ছে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।
এ জাতীয় আরও খবর
Translate »