1. smsitservice007gmail.com : admin :
রূপগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা নারীকে নির্যাতন, থানায় অভিযোগ - সতেজ বার্তা ২৪
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা ২০ বছর পাড় হয়নি ধর্ষন, মাদক সহ ২৪টি মামার আসামি ইয়াবা সুন্দরীর ছেলে কিশোর গ্যাং লিডার তানভীরের. রাজশাহীতে সংরক্ষিত আসনে এক ডজন নেত্রী আলোচনায় মর্জিনা

রূপগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা নারীকে নির্যাতন, থানায় অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার,(নারায়ণগঞ্জ) 
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩০ বার পঠিত

 

নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্রে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইউপি সদস্য শমসের আলীর নেতৃত্বে সুমাইয়া আক্তার (২০) নামের ৮ মাসের এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে বেধরক পিটিয়ে নির্যাতন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল ৯ ডিসেম্বার শনিবার সকালে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর শশুর মোঃ আওলাদ হোসেন বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

উল্লেখ্য,গত শুক্রবার রাতে উপজেলার চনপাড়া পূর্নবাসন কেন্দ্র এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

লিখিত অভিযোগে মোঃ আওলাদ হোসেন জানান,

 

ইউপি সদস্য শমসের আলীর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে তাদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

 

এ বিরোধের জের ধরে শুক্রবার রাতে শমসের আলীর নেতৃত্বে মোঃ আলী, হেলাল, আপন, মিনারা, শাহাবুদ্দিনসহ অজ্ঞাত ১০/১২ সদস্যের একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আওলাদ হোসেনের বাড়িতে ভাংচুর,লুটপাট চালাতে থাকে। এসময় আওলাদ হোসেনে এর ছেলের স্ত্রী ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা সুমাইয়া আক্তার বাঁধা প্রদান করলে সন্ত্রাসীরা তার চুলের মুঠি ধরে রুমের বাইরে বের করে এলোপাতারিভাবে পিটিয়ে অমানুষিক নির্যাতন চালায়।

এসময় আওলাদের স্ত্রী সেলিনা আক্তার পুত্রবধূ সুমাইয়াকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা তাকেও পিটিয়ে গুরতর আহত করে। পরে সন্ত্রাসীরা বাড়িঘর ভাংচুর করে নগদ ২৫ হাজার টাকা ও ৩ লাখ টাকার আসবাবপত্র লুটপাট করে নিয়ে যায়।

 

পরে স্থানীয়রা আহতদের তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

 

স্থানীয়রা জানান, চনপাড়ার সাবেক ইউপি সদস্য বজলুর রহমান (বজলু) মারা যাওয়ার পর ওয়ার্ড উপ-নির্বাচনে শমসের আলী খাঁন ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়। ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে চাঁদাবাজি, দখল ও মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নিতে একাধিক গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বর্তমানে শমসের চনপাড়ার নতুন ডন হিসেবে পরিচিত। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে জয়নাল গ্রুপ ও শমসের গ্রুপের মাঝে বেশকয়েকবার ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় স্থানীয়রা। পরে জয়নাল আইন শঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর চনপাড়া কিছুদিন শান্ত থাকলেও গত কয়েকদিন ধরে শমসের আবারো বেপরোয়া হয়ে পড়েছে।

 

এ ঘটনার বিষয়ে শমসের আলী বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যে ও বানোয়াট আমি এ ঘটনার বিষয়ে কিছু জানিনা।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) জোবায়ের হোসেন বলেন, ভাংচু ও লুটপাটের বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর
Translate »