1. smsitservice007gmail.com : admin :
তানোরে আমন কাটা-মাড়াই শুরু - সতেজ বার্তা ২৪
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০১:০৫ পূর্বাহ্ন
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০১:০৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা ২০ বছর পাড় হয়নি ধর্ষন, মাদক সহ ২৪টি মামার আসামি ইয়াবা সুন্দরীর ছেলে কিশোর গ্যাং লিডার তানভীরের. রাজশাহীতে সংরক্ষিত আসনে এক ডজন নেত্রী আলোচনায় মর্জিনা

তানোরে আমন কাটা-মাড়াই শুরু

আলিফ হোসেন,তানোরঃ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১১৩ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোরে চলতি মৌসুমে আমন কাটা-মাড়াই শুরু হয়েছে। এবার বাম্পার ফলন ও বাজারে আশাব্যঞ্জক দাম থাকায় কৃষকের মূখে হাসি ফুটে উঠেছে। যেদিকে তাকায় যতো দুরে দৃষ্টি যায় মাঠের পর মাঠ সোনালী ফসলে ভরে উঠেছে। আমনখেতে শোভা পাচ্ছে পাকা ধানের সোনালী শীষ। তবে এবার সেচ, হালচাষ, কীটনাশক ও শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধির কারে উৎপাদন খরচ বেড়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার সিংহভাগ মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। এবং আমন চাষ হয় সবচেয়ে বেশি জমিতে। তবে এবার শুরুতে খরা এবং শেষ মুহূর্তে  অতিবৃষ্টি, পোকা ও দমকা হাওয়াসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করতে হয়েছে চাষিদের ।
সংশ্লিষ্ট  সুত্রে জানা গেছে চলতি মৌসুমে আমন ধান রোপন হয়েছে প্রায় সাড়ে ২২ হাজার হেক্টর জমিতে । এর মধ্যে বন্যায় ক্ষতি হয় প্রায় এক হাজার হেক্টর জমির ধান। কৃষকেরা জানান, এবছর প্রায় ১০ জাতের ধান চাষাবাদ করা হয়েছে। এর মধ্যে ব্রি-৪৯, ব্রি-৫২, বিনা-২৭ ও স্বর্ণা জাত অন্যতম। এছাড়াও স্থানীয় জাতের ধান প্রায় এক হাজার হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করা হয়েছে। উপজেলার পাঁচন্দর ইউনিয়নের (ইউপি) কৃষক কামরুল ইসলাম বলেন, তার ৫ বিঘা জমিতে সুমন স্বর্ণা জাতের ধান চাষাবাদ করা  হয়েছে । দু’এক দিনের মধ্যে কাটা পড়বে। প্রতি বিঘায় কাঁচির হিসেবে (২৮ কেজিতে মণ) ২৫ থেকে ২৬ মণ করে ফলন হতে পারে। তবে গত বছর বিঘা প্রতি ২৮ থেকে ৩০ মণ (কাঁচি) করে  ফলন হয়েছিল। এবছরেও আগের বছরের মতো ফলন আশা করা হয়েছিল। কিন্তু গত মাসে অতিবৃষ্টিতে বন্যা ও কারেন্ট পোকার আক্রমণের কারণে ফলন হ্রাসের আশঙ্কা করা হচ্ছে।
এবিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল্লাহ আহম্মেদ  বলেন, আবহাওয়া
অনুকুলে আছে । এবারে আমনের ফলন ভালো হবে। ধানের দামও ভালো আছে। হেক্টর প্রতি প্রায় ৬ মেট্রিক টন করে ফলন ধরা হয়েছে, সেই হিসেবে এবার প্রায় এক লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন ফলন হবে। যা উপজেলার জনসংখ্যার চাহিদার তুলনায় কয়েকগুন বেশি।
এ জাতীয় আরও খবর
Translate »