1. smsitservice007gmail.com : admin :
তানোরে অবৈধ সুঁতিজালে জড়িয়ে যুবকের মৃত্যু দায় নিবে কে - সতেজ বার্তা ২৪
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১০:২২ অপরাহ্ন
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১০:২২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলা দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাৎ ও শিব লিঙ্গ বিক্রির অভিযোগ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা

তানোরে অবৈধ সুঁতিজালে জড়িয়ে যুবকের মৃত্যু দায় নিবে কে

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২৩
  • ২৪০ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোরে মাছ শিকারের জন্য বিলে পেতে রাখা নিষিদ্ধ সুঁতি জালে (মরণফাঁদ) জড়িয়ে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। নিহতের নাম ইমানুয়েল হাসদা (২৪)। তিনি উপজেলার কলমা ইউপির অমৃতপুর আদিবাসী পল্লীর বাসিন্দা মৃত
লগেন হাসদার পুত্র। গত ৩ নভেম্বর শুক্রবার দুপুরে উপজেলার সীমান্তবর্তী কামারগাঁ ইউপির টেংরা ভাঙাবাঁধে এই ঘটনা ঘটেছে। এই মৃত্যুর দায় কোনো ভাবেই জালের মালিক মফিজ ও তার জামাই জালাল এড়াতে পারে না। এ ঘটনায় অবৈধ সুঁতি জালের মালিক দমদমা ব্যবসিকপাড়া গ্রামের মৃত মবুল্লার পুত্র মফিজ উদ্দিন এবং তার জামাই মান্দার সগুনিয়া গ্রামের মৃত ছাবের আলীর পুত্র জালাল উদ্দীনের দৃষ্টান্তমূলক শান্তি ও গ্রেফতারের দাবিতে গ্রামবাসি বিক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।
জানা গেছে,তানোর ও মান্দার সীমান্ত সংলগ্ন টেংরাবাঁধ। তানোরের অমৃতপুর আদিবাসী পল্লীর কয়েকজন যুবক টেংরাবাঁধে বন্যপ্রাণী শিকারে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এদিন দুপুরে শিকার শেষে টেংরা ভাঙাবাঁধ পার হয়ে আশার সময়। যুবক ইমানুয়েল অবৈধ সুঁতি জড়িয়ে স্রোতে ভেসে গেলে ঘটনা স্থলেই তার মৃত্যু হয়।
স্থানীয় গ্রামবাসিরা জানান গত বছর সিদ্ধান্ত হয়েছে, টেংরা ভাঙাবাঁধ আশপাশে কেউ সুতি জাল ফেলতে পারবে না। কিন্ত্ত গ্রামের প্রভাবশালী দুজনকে  ম্যানেজ করে মফিজ জোরপুর্বক সেখানে অবৈধ সুঁতি জাল ফেলেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিহতের এক স্বজন জানান, এঘটনায় তারা মামলা করতে চাইলেও, গ্রামের এক আওয়ামী লীগ নেতার হুমকি-ধমকির ভয়ে মামলা করতে পারেননি। কিছু টাকা-পয়সা দিয়ে ঘটনা ভিন্নখাতে প্রভাবিত করেছে। এবিষয়ে জানতে চাইলে মফিজ উদ্দিন বলেন, গ্রামের সাইদুর রহমানের কাছে থেকে তিনি বিলের প্রায় তিন একর আয়তন (জল) ইজারা নিয়ে সেখানে জাল ফেলেছেন। এখন দুপুর সময় সেই জালে পড়ে কেউ মারা গেলে তার দায় তো তাদের নয়। তিনি বলেন, সুঁতি জাল অবৈধ ঠিক আছে তবে সবাই তো এসব জাল ফেলেছে। এবিষয়ে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রহিম জানান, নিহতের পরিবার থেকে কেউ কোন অভিযোগ না করায় লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে।
এ জাতীয় আরও খবর
Translate »