1. smsitservice007gmail.com : admin :
হরিরামপুর উপজেলার ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ - সতেজ বার্তা ২৪
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:৪১ অপরাহ্ন
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:৪১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলা দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাৎ ও শিব লিঙ্গ বিক্রির অভিযোগ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা

হরিরামপুর উপজেলার ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার মোঃ মাহাবুব আলম তুষার 
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২১ জুলাই, ২০২৩
  • ৫৭ বার পঠিত

 

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের দশ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে লেছড়াগঞ্জ বালু মহালের ইজারাদার মের্সাস দেওয়ান কপোরেশনের মালীক মো: আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে হরিরামপুর থানায় তাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

আজ শুক্রবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হরিরামপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার আদিত্য।

অভিযুক্তরা হলো হরিরামপুর

উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. লুৎফর রহমান,উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. ফরিদ মোল্লা,ধুলশুরা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন,ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দেলু,রিফাত চৌধুরী,রিতান মোল্লা মো. সোহাগ, ইমারত হোসেন সিদ্দিক হোসেন ও রিপন মোল্লা ।

জানা যায়,উপজেলার লেছড়াগঞ্জ বালু মহালের ইজারাদার গত দুই মাস যাবত সরকারের সকল বিধি মেনে বালুমহালের নির্ধারিত স্থান থেকে বালু উত্তোলন করে দেশের বিভিন্ন স্থানে উন্নয়ন কাজে সরবরাহ করে আসছেন।

মঙ্গলবার উপজেলার ধুলশুড়া বাজার হতে পশ্চিম দিকে পদ্মা নদীর পূর্বে বালু বহনকারী ১০-১২টি বাল্কহেড পৌঁছানো মাত্র বাল্কহেডের গতিরোধ করে। পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাল্কহেডের সুকানি ও শ্রমিকদের নিকট চাঁদা দাবি করে।

তারা চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় সুকানি ও শ্রমিকদের ওপর রামদা, লোহার রড ও লাঠি নিয়ে হামলা করে। এতে বাল্কহেডের সুকানিসহ কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়েছে।

 

এ বিষয়ে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোল্লা ফরিদ বলেন,

আমি এলাকায় ছিলাম না।

আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ

মিথ্যা ও ভিত্তিহীন রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকে এ অভিযোগ করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে হরিরামপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লুৎফর রহমান বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানিনা। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকে ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হয়েছে। আর বাল্কহেড আটকে আমার কি লাভ? এগুলো মিথ্যা অভিযোগ।

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী মো. আলমগীর হোসেন বলেন,বাল্কহেডে থাকা সুকানি,কর্মচারীসহ সবাইকে মারধরসহ চাঁদাবাজি দাবী

করেছে ওরা।এ ঘটনায় বাল্কহেড শ্রমিকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে এবং বালু মহলে বালু নিতে আসতে অপারগতা প্রকাশ করছে। একদিকে যেমন আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি, তেমনি উন্নয়নমূলক কাজও ব্যাহত হচ্ছে। এ ঘটনার থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে হরিরামপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার আদিত্য বলেন,অভিযোগ পেয়েছি। অনুসন্ধান চলছে। ঘটনার সত্যতা পেলে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর
Translate »