1. smsitservice007gmail.com : admin :
সাভার সড়কে টোল আদায় করে প্রশাসনকে চমকে দিয়েছে ‘সুলতান’ - সতেজ বার্তা ২৪
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১০:৪৫ অপরাহ্ন
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১০:৪৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলা দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাৎ ও শিব লিঙ্গ বিক্রির অভিযোগ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা

সাভার সড়কে টোল আদায় করে প্রশাসনকে চমকে দিয়েছে ‘সুলতান’

মো: শামীম আহমেদ, সাভার
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১৩৬ বার পঠিত

সাভার সড়কে টোল আদায় করে প্রশাসনকে চমকে দিয়েছে ‘সুলতান’
৮ ফেব্রুয়ারি, সাভার পৌরসভা কর্তৃপক্ষ বলেছে যে তারা রাস্তা ও মহাসড়কে ইজারা দেয় না বা টোল আদায় করে না।

ক্ষমতাসীন দলের প্রভাবশালী নেতারা অবৈধভাবে সাভারের বিরুলিয়া-আক্রাইন সড়কে অটোরিকশা ও পিকআপ ট্রাক থেকে টোল আদায়ের বিষয়টি অস্বীকার করেছে সাভার পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ও উপজেলা প্রশাসন।

কর্তৃপক্ষ সড়কে টোল আদায়কে বেআইনি বলে জানিয়েছে এবং এই প্রতিবেদককে এ ধরনের কাজ বন্ধ করতে পুলিশকে জানাতে বলেছে।

শুক্রবার এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে জানা যায়, চার কিলোমিটার সড়কে অন্তত ৭০০-৮০০ অটোরিকশা চলাচল করে এবং চালকদের প্রতিদিন ১০ টাকা করে দিতে হয়। টাকা আদায়ের জন্য দুই স্টপে কাজ করছেন চারজন কর্মী। টাকা নেওয়ার পর তারা অটোরিকশাটিকে মার্কার পেন দিয়ে চিহ্নিত করলেও কোনো রসিদ বা টোকেন দেয় না।

সড়কে চলাচলকারী ট্রাক ও মিনি-ট্রাক থেকেও তারা টাকা আদায় করে। 14 ফেব্রুয়ারি, একটি চলন্ত ট্রাক টোল আদায় করতে থামলে একটি দুর্ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়দের রোষের মুখে পড়েন টোল আদায়কারীরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে, সংগ্রহকারীরা চাঁদাবাজির কথা স্বীকার করেছেন।

এছাড়া সড়কে চলাচলকারী ভ্রাম্যমাণ খাবারের দোকান থেকেও প্রতিদিন ১০০ থেকে ২০০ টাকা চাঁদা আদায় করছে এই চক্র।

শুক্রবার বিকেলে ইমন্দিপুরের বাসিন্দা সোহেল ও সাকিন নামে দুই যুবককে এ সড়কে অটোরিকশা থেকে টাকা আদায় করতে দেখা যায়।

সাভার পৌরসভা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুবেল মন্ডল ও সোহেল রাজ রানা ওরফে লেংড়া সোহেলের নির্দেশনা মেনে চলছেন বলে জানান তারা।
বেশ কয়েকজন অটোরিকশা চালক এই চাঁদা দেওয়ার কথা জানিয়েছেন। কিন্তু তারা কেন টাকা দিচ্ছেন তা জানেন না তবে না মানলে ফল ভোগ করার হুমকি দেওয়া হয়। তারা জানান, দীর্ঘদিন ধরে টোল আদায় বন্ধ থাকলেও কেউ কেউ আবার তা শুরু করেছেন।

টোল গ্যাংয়ের শীর্ষ ব্যক্তি আবু নাঈম সুলতান (সোহাগ)। জানা গেছে, সুলতান সাভারে একটি কুলি স্ট্যান্ডের জন্য ইজারা নেন এবং পরে বিরুলিয়া-আক্রাইন সড়ক থেকে রুবেল মন্ডলকে টোল আদায়ের কাজ দেন।

বারবার চেষ্টা করেও সুলতানের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা যায়নি।

টোল আদায় নিষিদ্ধ
ঢাকা জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত ৩০ জানুয়ারির আদেশে বলা হয়েছে, টার্মিনাল ছাড়া মহাসড়কে টোল আদায় অবৈধ। তা বন্ধ করতে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও পৌর মেয়রকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এছাড়া ৩১ জানুয়ারি সাভার পৌরসভার দেওয়া ইজারা তালিকায়ও বলা হয়েছে, সড়ক বা মহাসড়কে টোল আদায় করা যাবে না।

৮ ফেব্রুয়ারি মেয়রের অন্য একটি নির্দেশে, পৌরসভা স্পষ্ট করেছে যে তারা রাস্তা ও মহাসড়কে ইজারা দেয় না বা টোল আদায় করে না।

যা বলে অভিযুক্তরা
জানতে চাইলে সোহেল রাজ বলেন, ‘রাজাশান সড়কের টেন্ডার আমার নামে নেই, রুবেল মণ্ডলের আছে। টোল আদায় করা আমার কাছে বিশ্রী লাগে। আমি এর সাথে জড়িত নই।”

তিনি আরও দাবি করেন, পুলিশসহ অনেকেই বিষয়টি নিয়ে তাকে ফোন করছেন। তিনি ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “আমি এটা নিয়ে বিভ্রান্তিতে আছি।

যোগাযোগ করা হলে রুবেল মন্ডল বলেন, “সুলতান ভাই ইজারাদার। এটা দেখাশোনা করা আমার দায়িত্ব।”

তিনি দাবি করেন, তারা অটোরিকশা থেকে কোনো টাকা আদায় করেননি। “আমরা ট্রাক এবং পিক-আপ ভ্যানের মতো ইঞ্জিনের যানবাহন থেকে শুধুমাত্র 20-50 টাকা টোল আদায় করি। টাকা জোগাড় করছেন পাঁচ থেকে সাতজন।

“সুলতান ভাই বলতে পারেন রাস্তা থেকে টোল আদায় করা যাবে না। তিনি পৌরসভার কাছ থেকে লিজ নিয়েছেন।”

কর্মকর্তাদের বক্তব্য
সাভারের মেয়র হাজী আব্দুল গনি এই প্রতিবেদককে টোল আদায়কারীদের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করতে বলেন।

“আমাদের চিঠিটা দেখুন। চিঠিতে স্পষ্ট লেখা আছে যে কোনো গলি, রাস্তা বা স্থানে টাকা আদায় করা নিষেধ। কেউ টাকা আদায় করলে তাকে থানায় সোপর্দ করুন,” ।

সাভারের ইউএনও মাজহারুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তিনি জানেন না।

“আমরা সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেব। বিষয়টি পুলিশকে জানাতে পারেন। টহল পুলিশ তাদের হাতেনাতে ধরতে পারলে আমরাও ব্যবস্থা নেব।”

এ জাতীয় আরও খবর
Translate »