1. smsitservice007gmail.com : admin :
কালীগঞ্জ উপজেলায় ছাত্রলীগ নেতার হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিত মানববন্ধন - সতেজ বার্তা ২৪
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলা দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাৎ ও শিব লিঙ্গ বিক্রির অভিযোগ ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকের ডিগবাজি না’কি বিদ্রোহ? সাভারে মাদকের সয়লব , এক নজরে মাদক গ্যাং রাজশাহী আওয়ামী  প্রকাশ্যে বিভক্তির আভাস দায়ী কে ? তানোরে ৩টি পাকা রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তরুন মেধাবী যুবনেতা সাইফুল ইসলাম শাকিল তানোরে প্রবেশপত্র আটকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ায় ফিল্ম স্টাইলে কুপিয়ে দানিয়াল নামের এক যুবককে হত্যা করলো দুর্বৃত্তরা..! তানোরে দোকানের সামনে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা

কালীগঞ্জ উপজেলায় ছাত্রলীগ নেতার হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিত মানববন্ধন

মাজাহারুল ইসলাম মামুন,  লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৮ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১৪১ বার পঠিত

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ছাত্রলীগ নেতা আবু মুসা ছোটনকে(৪০) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয়রা।
শুক্রবার (৭ এপ্রিল) লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের কালীগঞ্জ থানার সামনে এ মানববন্ধন করেন নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা।
এর আগে মঙ্গলবার (০৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার শ্রুতিধর জামিরবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।
নিহত ছাত্রলীগ নেতা আবু মুসা ছোটন শ্রুতিধর জামিরবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকার মৃত আবুল কাসেমের ছেলে। তিনি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, চাচাত ভাই জাকির হোসেন পলাশসহ কয়েকজন ছোটনের বাড়িতে গিয়ে তাকে জরুরি আলাপের কথা বলে পার্শ্ববর্তী স্কুল মাঠে নিয়ে যান। তাদের আলাপ আলোচনার একপর্যায়ে কথা কাটাকাটি শুরু হলে পলাশসহ কয়েকজন ছোটনকে মারধর শুরু করেন এবং এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। পরে ছোটনের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে পলাশকে আটক করে এবং রক্তাক্ত অবস্থায় আহত ছোটনকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
সেখানে তার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা ছোটনকে মৃত ঘোষণা করে। পরে আটক পলাশকে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয়রা।
এ ঘটনায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা ছোটনের মা ছালেহা বেগম বাদি হয়ে ২৬জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১২জনের বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। জনতার হাতে আটক পলাশকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার(৫ এপ্রিল) ১৬৪ ধারায় জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠায় পুলিশ।
এরপর থেকে আলোচিত এ মামলার কোন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। তাই নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী শুক্রবার(৭ এপ্রিল) কালীগঞ্জ থানার সামনে মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে ছাত্রলীগ নেতা ছোটনের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবি জানানো হয়।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, নিহত ছোটনের স্ত্রী নাজমা খাতুন, ছোটনের মা মামলার বাদি ছালেমা বেগম, বড় ভাই সাইফুল ইসলাস খোকন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক কমলেন্দু রায় মিন্টু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রেফাজ রাঙ্গা, সাবেক ছাত্র নেতা নুরনবী মেম্বার, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদিকুল ইসলাম সজিব, কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিষ্টার রহমান, ছাত্রলীগ কর্মী আলীরাজ আনছারী সঞ্চয় প্রমুখ।
এ জাতীয় আরও খবর
Translate »