1. admin@sotejbarta24.com : admin :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৩৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ:
কুমিল্লায় বাস-সিএনজি অটোরিক্সা সংঘর্ষে নিহত ৪
সংবাদ শিরোনাম:
সাভারের আল-মুসলিম গার্মেন্টসটি এখন রাস্তার জ্যামের অন্যতম কারন কাতারে শুরা কাউন্সিল বা জাতীয় আইনসভা নির্বাচনের প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ কসবায় মাদক নারী ব্যবসায়ী গাঁজাসহ গ্রেফতার ১ সাভারের হেমায়েতপুরের ট্যানারিপল্লি বন্ধের নোটিশ রায়পুরায় কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত রায়পুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফারুক হোসেন (আলী) মত বিনিময় সভা কসবায় মাদক ব্যবসায়ী ১২ কেজি গাঁজা ও নগদ টাকাসহ গ্রেফতার ১ কসবায় সাংবাদিকে প্রাণনাশের হুমকি কাতার চ্যারিটি বাংলাদেশের উপকূলীয় জেলাগুলোতে আরো ১২০০টি ডিপ টিউবওয়েল স্থাপন করবে ৯ হাজার কোটির পিএসজিকে রুখে দিল মাত্র ১৪০ কোটির পুচকে ক্লাব

 96 total views,  56 views today

সাভারে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদা দাবি ও মারধরের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময়: সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৩ বার পঠিত
সাভার সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সোহেল রানার বিরুদ্ধে স্থানীয় ৩ নং ওয়ার্ড ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল করিমের কাছে চাঁদা দাবি ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আব্দুল করিমেরছেলে মোহাম্মদ শাহরিয়ার ইসলাম শরীফ বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযুক্তরা হলো, সাভার পৌরসভার ডগরমোড়া এলাকার আহাম্মদ আলীর ছেলে সাভার সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা (২৬), চাপাইন এলাকার আজিম উদ্দিনের ছেলে রাইসুল ওরফে বাবু (২৩) ও তার সহযোগী ইসরাফিল (২৮)।

ভুক্তভুগী ইউপি সদস্য আব্দুল করিম জানান, সরকারি রাস্তার ড্রেনের কাজ করার সময় সেখানকার কিছু ইট ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল রানার নির্দেশে আমার হেফাজতে রাখি। এ অবস্থায় রবিবার রাতে সাভার সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানার নেতৃত্বে ১০টি মোটরসাইকেলে করে প্রায় ২০ জন সন্ত্রাসী এসে আমোকে বিভিন্ন হুমকী দেয় এবং রাস্তা নির্মাণ কাজ বাধা বন্ধ রাখতে বলে। এর আগে রাইসুল ওরফে বাবু আমাকে ফোন করে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। কিন্তু আমি চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করায় সন্ত্রাসীরা স্থানীয় কয়েকটি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। তাদেরকে বাঁধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা আমার ভাতিজাসহ কয়েকজনকে মারধর করে। এছাড়া পরবর্তীতে রাস্তার কাজ করতে গেলে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

সন্ত্রাসীদের মারধরে আহত লেবার হাফিজুর রহমান বলেন, আমি রাস্তার কাজ করার সময় কয়েকজন ছেলে মোটরসাইকেলে করে এসে আমাদের কাজ বন্ধ করে দেয়। আমি কারণ জানতে চাইলে তারা আমাদেরকে মারধর করে।

স্থানীয়রা জানায়, রবিবার রাতে ছাত্রলীগ নেতা সোহেল রানার নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে লেবার হাফিজুর রহমান, আনোয়ার, খোকা মিয়া, আবু কালামসহ কয়েকজনকে মারধর করে। এছাড়া পরবর্তীতে তাদের নির্দেশ ছাড়া কাজ করলে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। এসময় স্থানীয় বেশ কয়েকটি দোকানে ভাঙচুর করা ব্যবসায়ী এলাকাবাসীরা আতঙ্কে রয়েছেন।

তবে অভিযুক্ত ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সোহেল রানা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মারধরের সময় আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না এবং চাঁদা দাবির বিষয়টি আমার জানা নাই। তবে দুই গ্রুপে ঝামেলার খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে সরিয়ে দেই এবং বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ সোহেল রানাকে জানাই। তিনি বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদে বসে সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

জানতে চাইলে সাভার সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ সোহেল রানা বলেন, আমি মেম্বারকে ইটাগুলো তার হেফাজতে রাখতে বলেছি। এরপরও কেন ছাত্রলীগ সভাপতি সোহেল রানা বিষয়টি নিয়ে ঝামেলা করলো সেটা নিয়ে আমরা ইউনিয়ন পরিষদে বসে শুনবো এবং সমস্যার সমাধান করবো।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহ আলম বলেন, অভিযোগের বিষয়ে জানতে পেরেছি। এঘটনায় সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর...

ফেসবুকে আমরা

English version»