1. admin@sotejbarta24.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০২:১৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ:
কাতারের মসজিদগুলিতে আরোপিত বিধিনিষেধ প্রত্যাহার
সংবাদ শিরোনাম:
কাতারে স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে কোভিক-১৯ ভ্যাকসিনেশন সেন্টার কাতারের শুরা কাউন্সিল নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সরাসরি নিয়োগ ফিলিস্তিনিদের সহায়তায় ৫০০ মিলিয়ন ডলার দেওয়া অব্যহৃত রেখেছে কাতার সরকার সাত মাস ধরে বেতন পাচ্ছেন না সারাদেশে নোকিয়া মার্কেট এক্সপ্রেসে’র এর কর্মীরা। অলিপুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ছিনতাইকারী ও রিক্সা উদ্ধার কাতারে QID সংক্রান্ত অবৈধ প্রবাসীদের বৈধ হওয়ার বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার সুখবর ঘোষনা দিল কাতার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাতারে গতবছরের তুলনায় বহুগুণে বেড়ে চলেছে পর্যটকের সংখ্যা ফিফা ফুটবল কোর্টের বিরোধ নিষ্পত্তি কমিটির সদস্য রায়পুরায় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস ২০২১ পালিত

 269 total views,  205 views today

“ঢাকা পানির নিচে”

স্টাফ রির্পোটার
  • আপডেট সময়: সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১
  • ৬২ বার পঠিত
রাজধানীর গ্রিনরোডে গতকাল পানি থইথই

গতকাল ভোর থেকে টানা বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। অনেক রাস্তায় ছিল হাঁটু পানি। পানিতে থইথই করছিল অলি-গলি রাজপথ। বিভিন্ন গলিতে পানির সঙ্গে ময়লা ভাসতে দেখা গেছে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, গতকাল ঢাকায় মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হয়েছে। সকাল ৬টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ঢাকায় ৪১ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছে ৪৩ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে কুমিল্লায় ১১৬ মিলিমিটার। আগামী দুই দিন বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বৃষ্টিতে গ্রিন রোড, কারওয়ান বাজার, তেজতুরি বাজার, কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভিনিউ ও ধানমন্ডি-২৭ এর সড়কসহ আশপাশের বেশ কিছু সড়ক তলিয়ে যায়। এ ছাড়া কারওয়ান বাজারে পানি জমে যাওয়ার কারণে বাধ্য হয়ে শতাধিক ব্যবসায়ীকে দোকান বন্ধ রাখতে হয়েছে। এ ছাড়া সকাল থেকে থেমে হওয়া বৃষ্টিতে রাজধানীর তল্লারবাগ, পূর্ব রাজাবাজার, পশ্চিম রাজাবাজারসহ কাজীপাড়ার একাধিক এলাকা পানির নিচে তলিয়ে গেছে।
দেখা গেছে, সকালে গ্রিন রোডে পানি থৈ থৈ করছিল। রাস্তার পাশের অনেক দোকানেও পানি ঢুকে পড়ে। রাস্তায় কোথা কোথাও হাটু থেকে কোমর পর্যন্ত পানি ছিল। এতে সকালে দুর্ভোগে পড়তে হয় এই এলাকার বাসিন্দাদের। সকালে প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করার জন্য যারা বাইরে বের হয়েছিলেন তারা পড়েন দুর্ভোগে। অনেকেই পানির কারণে হেঁটেও রাস্তা পার হতে পারেননি। এ ছাড়া বৃষ্টি না থাকলেও অলি গলি, কাঁচাবাজার তলিয়েছে দুর্গন্ধযুক্ত পানিতে। আল আমিন রোড মসজিদের সামনেও ছিল হাঁটু পানি। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সুয়ারেজ লাইনে নিয়মিত পরিষ্কার না করায় একটু বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় এখানকার রাস্তা।

রাজাবাজারের এলাকাবাসীরা জানান, সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত মুষলধারে বৃষ্টি হয়। এতেই হাঁটু পর্যন্ত পানি উঠেছে পূর্ব ও পশ্চিম রাজাবাজার এলাকায়। এতে বাজার ও ব্যক্তিগত কাজে যারা বের হয়েছেন তারা দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছেন। গতকাল সকালে পূর্ব রাজাবাজার বাসিন্দা শফিক আহমেদ বলেন, এই এলাকার পয়ঃনিষ্কাশন অবস্থা খুবই খারাপ এ কারণে সামান্য বৃষ্টিতে পানির নিচে চলে যায় এই এলাকার অলিগলি। বৃষ্টি না হলেও ড্রেনের পানি রাস্তায় উঠে। জলাবদ্ধতার কারণে এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে দুর্ভোগে দিন পার করছেন। এমন অবস্থা ড্রেনের ময়লা পানি উপচে পড়ে বাসাবাড়ির রিজার্ভ ট্যাংকিতে প্রবেশ করছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, ইন্দিরা রোড, পূর্ব রাজাবাজার ও পশ্চিম রাজাবাজারের বেশিরভাগ রাস্তায় কোমর পানি জমেছে। এতে রিকশা ও গাড়ি চলাচলও ব্যাহত হচ্ছে। একইভাবে পান্থপথ সিগনাল, গ্রিন রোডের বিভিন্ন স্থানে পানি জমতে দেখা গেছে। লুঙ্গি, প্যান্ট তুলে অনেককেই সড়কে চলাচল করতে দেখা যায়। সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন নারী ও শিশুরা। জলাবদ্ধতার কারণে রাস্তার ওপর অনেক গাড়ির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায়। ফলে জলজটের পাশাপাশি যানজটও তৈরি হয় এসব এলাকায়। এদিকে বৃষ্টিতে কারওয়ান বাজারে জমেছে হাঁটু পানি। তাতে ক্রেতা না আসায় কষ্টের মাত্রা বেড়েছে ব্যবসায়ীদের। সরেজমিন দেখা যায়, পানি জমে যাওয়ার কারণে বাধ্য হয়ে শতাধিক ব্যবসায়ীকে দোকান বন্ধ রাখতে হয়েছে। আবার যে কজন দোকান খোলা রেখেছেন, তাদের অনেকের মালামাল ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে। সকালে ক্রেতার আশায় বসে থাকলেও বাজারমুখী হননি কেউ। ব্যবসায়ীরা অনেকেই গল্প করছেন, কেউ বা মোবাইলে গেমস খেলে, গান গেয়ে সময় কাটাচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর...

ফেসবুকে আমরা

English version»